মঠবাড়িয়ায় নৌকা প্রার্থীর সমথর্কদের হামলায় স্বতন্ত্র প্রার্থী নির্বাচনী কার্যালয় ও সভামঞ্চ ভাংচুর

 

মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি :পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলায় ২১ জুন অনুষ্ঠিতব্য ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে মিরুখালী ইউনিয়নের নৌকা প্রার্থী সোবহান শরীফের সমর্থকদের দুই দফা হামলায় স্বতন্ত্র প্রার্থী ও উপজেলা যুবলীগের সভাপতি আবু হানিফ খানের সভামঞ্চ সহ ৫টি নির্বাচনী কার্যালয় ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার জুমার নামাজের সময় ও সন্ধ্যায় ভাংচুরের এ ঘটনা ঘটে।
স্থানীয় সুত্রে জানাগেছে, স্বতন্ত্র প্রার্থী (আনরস প্রতীক) আবু হানিফ খানের নির্ধারিত ঝাউতলা নির্বাচনী সভা আওয়ামীলীগের নৌকা প্রার্থী সমর্থক ওই সভামঞ্চে তান্ডব চালিয়ে ২টি মাইক, ২৫০টি চেয়ার ভাংচুর করে ও প্রচার কার্যে ব্যবহৃত মাইকের ইউনিট খুলে নিয়ে যায়। অরপদিকে মিরুখালি বাজারে স্বতন্ত্র
প্রার্থী প্রচারনা কার্যালয় ৩টি, ভাগিরথপুর বাজারে ১টি ব্যপক ভাবে ভাংচুর চালায়। আনরস প্রতীকের প্রতিদ্বন্দ্বি স্বতন্ত্র প্রার্থী আবু
হানিফ খান জানান, আমার নির্বাচনে বিজয় নিশ্চিত জেনে পরিকল্পিত ভাবে নৌকা সমর্থক ৫০/৬০ জনের একটি ক্যাডার বাহিনী অস্ত্র
স্বস্ত্রে সজ্জিত হয়ে ঝাউতলায় পূর্ব নির্ধারিত সভামঞ্চ তান্ডব চালিয়ে ব্যাপক ভাংচুর চালায়। মঠবাড়িয়া থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুহা.
নুরুল ইসলাম বাদল জানান, শুক্রবার রাতে পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা সহ র‌্যাবের একটি টিম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। অফিস ভাংচুরের ঘটনায় ইতোমধ্যে বাদুরা গ্রামের মুন্না শরীফ ওরফে মাসুম বিল্লাহ (২২) ও খোকন (৩৯) নামে দুইজনকে ঘটনাস্থল থেকে আটক করেছে।
এ বিষয়ে আওয়ামীলীগের নৌকা প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা আ. সোবাহান শরীফের সাথে একাধিকাবার মুঠোফোনে যোগাযোগ করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

0Shares

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।