মঠবাড়িয়ায় নৌকা মার্কার নির্বাচন করায় গ্রামবাসীর চলাচলের একমাত্র নৌকা কুপিয়ে চুরমার করলো সন্ত্রাসীরা

 

স্টাফ রিপোর্টার ঃ পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় ৩ নং মিরুখালী ইউনিয়নে আ,লীগ মনোনীত নৌকা মার্কার প্রার্থীর পক্ষে কর্মী হয়ে কাজ করায় গ্রাম বাসীর চলাচলের জন্য একমাত্র উপায় ১ টি নৌকা কুপিয়ে চুরমার করলো সন্ত্রাসীরা। ঘটনা টি ঘটেছে উপজেলার মিরুখালী ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ড নাগ্রাভাঙ্গা দাখিল মাদ্রাসার সম্মুখে। ঘটনা সুত্রে জানাযায় গত ২১ শে জুন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নাগ্রাভাঙ্গা গ্রামের মৃত নুর মোহাম্মদ হাং এর ছেলে ছগির হোসেন নৌকা মার্কার প্রার্থীর পক্ষে সমর্থন সহ কর্মী হয়ে কাজ করেন।উল্লেখ্য ছগির হোসেন সহ অত্র এলাকার কয়েকটি পরিবার মেইন সড়ক থেকে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন চারদিকে পানি ভর্তি মাঠের মধ্যে বাড়ি ঘর তৈরি করে বসবাস করে আসছে। তাদের চলাচলের জন্য রাস্তার কোনো ব্যাবস্হ নেই। বর্ষা মৌসুমে তাদের লোকালয় পৌছানোর জন্য একমাত্র উপায় ছিলো এই ছগির হোসেনের নৌকাটি।কিন্তু ছগির হোসেন নৌকা মার্কার নির্বাচন করা সহ ভোটের দিন ঐ পানি বন্দী ভোটার দের কে নৌকায় আনা নেওয়ার জন্য তার উপর ক্ষিপ্ত হয়ে এলাকার কিছু সন্ত্রাসীরা নির্বাচনের পরের দিন তার বাড়িতে গিয়ে দেশীয় অস্ত্র সস্ত্র নিয়ে মারধর করা সহ বিভিন্ন রকমের হামলা চালায়। তারই জের ধরে ঘটনার দিন ২৫শে জুন সন্ধার পরে কিছু সন্ত্রাসীরা একত্রিত হয়ে উপরে নৌকা হেরে গেছে নিচে নৌকা থাকবেনা বলে নৌকাটি কুপিয়ে চুরমার করে দেয়। এ ঘটনায় এলাকার বীর মুক্তিযোদ্ধা সহ প্রতক্ষ্য দর্শীরা জানান নৌকা টি কুপিয়ে আমদের হৃদয়খরন করেছে, প্রধানমন্ত্রীর নৌকাকে অপমান করা হয়েছে। এজন্য আমরা ব্যাথিত, আমরা এর সুষ্ঠু বিচারের দাবী জানাচ্ছি। এ ঘটনায় ছগির হোসেন বাদী হয়ে মঠবাড়িয়া থানায় ১!হৃদয় (১৯) পিতা নুর মোহাম্মদ ২! কামাল হোসেন (৩৮) পিতা হাবিবুর রহমান ৩! সাগর (১৮) পিতা কামাল হোসেন ৪! নুরমোহাম্মদ (৪০) পিতা মকবুল হাজি এদের কে আসামী করে একটি অভিযোগ দায়ের করেন। এ ব্যাপারে প্রতিপক্ষ কামালের স্ত্রী ও সাগরের মা ঘটনার বিষয় অস্বীকার করে বলেন ঐ দিন আমার ছেলে সাগর অসুস্থ ছিলো,ও স্বামী বাসায় ছিলো। এ ব্যাপারে মঠবাড়িয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ নূরুল ইসলাম বাদলের কাছে জানতে চাইলে তিনি অভিযোগের সত্যতা স্বীকার করে বলেন তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

0Shares

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।