মঠবাড়িয়ায় নিজ মেয়েকে ধর্ষণকারী লম্পট গ্রেফতার

মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি: পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় নিজ মেয়েকে ধর্ষণকারী লম্পট প্পনরপশু সেলিম বেপারী (৫০) কে অবশেষে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ। গতকাল শনিবার রাতে মঠবাড়িয়া থানা পুলিশ মোবাইল ট্রাকিংয়ের মাধ্যমে ঢাকা যাত্রাবাড়ী থানা পুলিশের সহায়তায় যাত্রাবাড়ি এলাকা থেকে ধর্ষক সেলিমকে গ্রেফতার করে। গত ৫ জুলাই লম্পট সেলিম তার ১৪ বছর বয়সী মেয়েকে নিজ বসত ঘর বসে ধর্ষণ করে। এ ঘটনায় সেলিমের স্ত্রী ও ধর্ষিতার মা বাদী হয়ে ১৯ জুলাই রোববার রাতে মঠবাড়িয়ায় থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলাটি দায়ের করেন। মামলা সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার ঘোপখালী গ্রামের নরপশু সেলিম বেপারী তার নিজের মেয়েকে বিভিন্ন সময় কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছিল। এতে সে রাজি না হয়ে প্রতিবাদ করলে নিজ পিতা মেয়েটির ওপর মানসিক ও শারিরীক নির্যাতন চালায়। এক পর্যায়ে চলতি মাসের ৫ জুলাই হতদরিদ্র পরিবারের মেয়েটির মাকে কৌশলে বাজার করার কথা বলে হাটে পাঠায়। এরপর একাকী ঘরে পেয়ে নিজ পিতা মেয়েটির মুখ চেপে ধরে জোর পূর্বক ধর্ষণ করে। পরে বাজার থেকে ফিরে এলে মেয়েটি তার মায়ের কাছে ধর্ষণের ঘটনাটি খুলে বলে। এরপর ধর্ষিতার মা বিষয়টি স্বামীর কাছে জিজ্ঞেস করিলে সেলিম বেপারী ক্ষিপ্ত হয়ে ঘরের সবাইকে খুন জখমের হুমকি দেয়। পরে সেলিমের অব্যাহত অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে আত্মীয়-স্বজনের সাথে আলাপ-আলোচনা করে ঘটনার ১৭ দিন পরে থানায় মামলাটি দায়ের করেন। ধর্ষিতা মেয়েটি সাংবাদিকদের কাছে বলেন, বাবা এর আগেও আমাকে চাকুরীর কথা বলে চট্টগ্রামে নিয়ে আমার ওপর পাষবিক নির্যাতন করে। পরে আমি আত্মহত্যা করার হুমকি দিলে আমার ওপর মানসিক নির্যাতন চালায়। মঠবাড়িয়া থানার ওসি আবু জাফর মো. মাসুদুজ্জামান মিলু জানান, লম্পট সেলিমকে শনিবার রাতে ঢাকার যাত্রাবাড়ি এলাকা থেকে গ্রেফতার করে আজ রোববার দুপুরে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

0Shares

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।