মঠবাড়িয়ায় ভূমি অফিস সহকারীর উপরে হামলা,থানায় মামলা আহত ২

স্টাফ রিপোর্টার : পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে কবির হোসেন নামে একজনকে কুপিয়ে জখম করার অভিযোগ পাওয়া গেছে । গত শনিবার সন্ধ্যায় উপজেলার পৌরসভার মোমেনীয়া দাখিল মাদ্রাসা সংলগ্ন এ ঘটনা ঘটে।আহতরা হলেন ওই এলাকার বাসা ভারাটিয়া কবির হোসেন হাওলাদার(৩২) ও তার স্ত্রী খাদিজা বেগম(২৮) । স্থানীয়রা আহত কবিরকে উদ্ধার করে মঠবাড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরণ করেন । আহত কবির হোসেন দক্ষিন বড় মাছুয়া গ্রামের মোঃ রুস্তম হাওলাদারের ছেলে।এব্যাপারে খাদিজা বেগম, বাদী হয় মঠবাড়িয়া থানায় জাকারিয়া, রাজ্জাক, আল আমিনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেন, মামলা সূত্রে জানাযায় , আল আমিন ও আঃ রাজ্জাক মোমেনিয়া দাখিল মাদ্রাসা সংলগ্ন জাকারিয়ার বাসার আসবাবপত্র তৈরি কাজের জন্য আসছিল এবং তারা কবির হোসেনের বাসার ছাদের উপরে কাজ শুরু করে। এতে অনেক শব্দ হয়ে কবির হোসেনের শিশু সন্তানের পড়াশোনায় বিঘ্ন সৃষ্টি হলে জাকারিয়াকে তাদের বাসার ছাদে গিয়ে কাজ করতে বলায় জাকারিয়া অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে।এসময় কবির হোসেন প্রতিবাদ করলে জাকারিয়া ক্ষিপ্ত হয়ে তার হাতের দাও দিয়ে কোপ দিলে মাটিতে পরে যায় পরে জাকারিয়ার কাজের লোক আঃ রাজ্জাক দারালো বাডইল দিয়ে কূপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। কবির হোসেন ডাক চিৎকার দিলে কবিরকে আল আমিন কিল ঘুষি মেরে ফুলা জখম করে । কবিরের স্ত্রী খাদিজা বেগম ডাক চিৎকার শুনে ছাদে আসেন এবং কবিরকে উদ্ধারের চেস্টা করলে খাদিজাকে ও এলোপাথাড়ি মারধর করে গালায় থাকা ১ভরি স্বর্নের চেইন ছিড়ে নিয়ে যায় যার মূল্য ৬০হাজার টাকা ।

এব্যপারে মঠবাড়িয়া থানার ওসি মাসুদুজ্জামান বলেন, দ্রুত আসামিদের আইনের আওতায় আনা হবে ।

0Shares

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।