মঠবাড়িয়ায় প্রতিবেশীকে ধর্ষণ মামলা দিয়ে ফাঁসানোর চেষ্টা।

স্টাফ রিপোর্টার: পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় উলুবাড়িয়া গ্রামে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে প্রতিবেশীকে ধর্ষণ মামলা দিয়ে ফাঁসানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে। এলাকাবাসী সূত্রে জানযায় বেতমোর ইউনিয়নে জমাদ্দার বংশ ও উলুবাড়িয়া গ্রামে মজিবর শরীফ বংশধয়ের মধ্যে দীর্ঘ দিন যাবত জমিজমা নিয়ে বিরোধ চলে আসছে।উক্ত বিরোধের জের ধরে স্হানীয় কিছু রাজনৈতিক ব্যাক্তিদের ইন্ধনে মৃত্যু মতিয়ার রহমান শরীফের স্ত্রী লাইলী বেগম (৫৫) কে ব্যবহার করে তাহার ঘরে গত ১৯ শে অক্টোবর রোজ সোমবার দিবাগত গভীর রাতে নাটকীয় ভাবে প্রথমে ঘরের সামনা থেকে সিঁধ কেটে চুরি ও বৃদ্ধ মহিলাকে মারধরের অভিযোগ এনে ডাক চিৎকার দিলে রাতে এলাকাবাসী এগিয়ে এসে থানা পুলিশ কে খবর দিলে পুলিশ ঘটনা স্হলে গিয়ে ঘরের সিঁধ কাটা অবস্থায় দেখতে পায় এবং চুরির তেমন কোনো আলামত না পাওয়ায় পরিবেশ নিয়ন্ত্রণে রেখে পুলিশ চলে যায়।কিন্তুু রাত পোহাতে গুঞ্জন বেরিয়ে এলো বৃদ্ধা মহিলা কে গন ধর্ষণ করা হয়েছে। তাই গন ধর্ষণের অভিযোগ এনে ২০ শে অক্টোবর মঠবাড়িয়া থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে পার্শ্ববর্তী গোলবুনিয়া গ্রামের ১| শামীম হাং(১৮) পিতা জামাল হাং ও উলুবাড়িয়া গ্রামের ২। মোঃ মামুন শরীফ (১৭) পিতা মোঃ মজিবর শরীফ ও আরো এক জন কে অজ্ঞাত নামা আসামী করে ধর্ষণ মামলা করা হয়।উক্ত মামলার প্রতিবাদে এলাকাবাসী চরম ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। তাদের দাবী এই কিশোর ছেলেরা এলাকার অত্যান্ত ভদ্র ছেলে এদের কে হয়রানি মুলক ধর্ষণ মামলা দিয়ে ফাঁসানোর চেষ্টা করছে।তারা প্রশাসনের কাছে সুষ্ঠু তদন্ত মুলক বিচারের দাবি জানিয়েছে।

0Shares

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

You may have missed