মঠবাড়িয়ায় স্ত্রী কতৃক স্বামী নির্যাতিত, উল্টো স্বামীর নামে যৌতুক মামলা দিয়ে হয়রানি।

স্টাফ রিপোর্টার ঃপিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলায় দক্ষিণ মিঠাখালী গ্রামে স্ত্রী কতৃক স্বামী কে নির্যাতন, উল্টো স্বামীর নামের যৌতুক মামলা দিয়ে হয়রানির করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। স্হানীয় ও মামলা সুত্রে জানাযায় দক্ষিণ মিঠাখালী গ্রামের মোঃ দ্বীন ইসলাম ফরাজীর ছেলে মোঃ নুরুজ্জামান ফরাজী(৪০) এর সাথে পাশ্ববর্তী উপজেলা পাথরঘাটার মানিকখালী গ্রামের মোঃ বাবুল হাওলাদার এর মেয়ে মোসাঃ রুমা আক্তার (২৯)এর সাথে বিগত ১৪/০৮/২০০৩ তারিখে শরিয়ত মোতাবেক রেজিষ্ট্রকৃত কাবিন নামা মূলে বিবাহ হয়।তাদের দাম্পত্য জীবনে ২টি ছেলে ও ১টি মেয়ে সন্তান আছে। বিবাহের পর থেকে তারা সুখে শান্তিতে সংসার শুরু করছিলো, কিন্তু জীবিকা নির্বাহের তাগিদে বিবাহের ৬ মাস পরেই নুরুজ্জামান কে চলে যেতে হলো সৌদিআরব অন্য দিকে স্ত্রী রুমা বেগমের ফ্যামিলি প্লানিংয়ে চাকুরী হয়ে যায় তার বাবার বাড়ি মানিকখালী এলাকায়। এই চাকুরীই যেন কাল হয়ে দাড়ালো নুরুজ্জামান এর পরিবারের উপর।এক দিকে স্বামীর বিদেশ থেকে পাঠানো টাকার গরম অন্য দিকে শুরু হয়ে গেলো নতুন পরকীয়া। শুরু হলো খুঁটি নাটি বিষয় পারিবারিক কলহ।অনুপায় হয়ে স্বামী বিদেশ থেকে দেশে এসে সংসারের হাল ধরলো,এবং স্ত্রীর কাছে বিভিন্ন ভাবে পাঠানো টাকার হিসাব চাওয়ায় শুরুহলো নুরুজ্জামান এর উপর শারীরিক মানসিক নির্যাতন, এমনকি সংসার করবেনা বলে চলে যা…

0Shares

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।