মঠবাড়িয়া প্রতিবেশীর জমি চক্রান্ত করে ক্রয়ে করে ৪ টি পরিবার কে বাড়ি ছাড়ার হুমকির অভিযোগ

 

স্টাফ রিপোর্টার ঃ পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া প্রতিবেশীর ওয়ারিশ দের কাছ থেকে চক্রান্ত করে জমি ক্রয় করে ৪ টি পরিবার কে বাড়ি ছাড়ার হুমকি দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার সাপলেজা ইউনিয়নের কচুবাড়িয়া গ্রামে।ঘটনা সুত্রে জানাযায় কচুবাড়ীয়া গ্রামের আমিন উদ্দিন হাওলাদার এর মৃত্যুর পরে তার রেখে যাওয়া চার একর সম্পত্তির ওয়ারিশ সুত্রে মালিক হয় তার ছেলে আঃ করিম,আঃ কাদের ও করম আলী হাং। কিন্তু অনেক আগেই করম আলীর অংশ মেঝো ভাই আঃ কাদের এর কাছে বিক্রি করে কলাপাড়া চলে যায় তিনি এবং বড়ো ভাই আঃ করিম ও কলাপাড়া গিয়ে বসতবাড়ী তৈরি করে। দুই ভাই কলাপাড়া যাওয়ার সুবাদে মেঝো ভাই আঃ কাদের ও কলাপাড়া ৬ কুড়া জমি ক্রয় করে।এক পর্যায়ে আসা যাওয়ায় দুরত্ব সৃষ্টি হওয়ায় আঃ কাদের এর কলাপাড়া ৬ কুড়া জমির বিনিময়ে বড়ো ভাই আঃ করিম এর বাবার ওয়ারিশ সুত্রে পাওয়া কচুবাড়ীয়া ২ কুড়া জমি এ্যাওয়েজ বদলের শর্তে উভয়ের মধ্যে ভোগ দখল শুরু হয়।এ ভাবে শতাধিক বছর ভোগ করতে থাকলে আঃ করিম থেকে ওয়ারিশ সুত্রে পাওয়া তার নাতি আবুল ও বাবুল এবং চার নাতনি ওয়ারিশ হওয়ায় কচুবাড়ীয়া গ্রামের মমিন উদ্দিন হাং এর ছেলে আবুল কালাম তাদের কে ভুল বুঝিয়ে ফুসলিয়ে ৭ কাঠা জমির কথা বলে ১ কুড়া ৭ কাঠা জমি ২০১৭ সালে গোপনে ছাপ কবলা করে নেয়। হঠাৎ করে বর্তমানে কালাম দলিল বের করে কাদেরের ছেলে আঃ খালেক ও মালেক সহ তাদের কয়েকটি পরিবার কে বাড়ি ছেড়ে চলে যাওয়ার হুমকি প্রদর্শন করে আসছে। এ ব্যাপারে খালেক ও মালেক কতৃপক্ষের কাছে মানবিক আবদনের মধ্য দিয়ে উক্ত জমি ফেরত পাওয়ার আবেদন জানান।এ ব্যাপারে প্রতিপক্ষ কালাম এর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন তাদের ওয়ারিশরা জমি বিক্রি করতে আসলে তারা না রাখতে পাড়ায় আমি জমি ক্রয় করেছি তারপরও এ বিষয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এর কাছে অভিযোগ দেওয়া হয়েছে তিনি যে সিদ্ধান্ত নিবেন তা আমি মেনে নিতে রাজি আছি।

0Shares

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।